ঠাণ্ডাজনিত সমস্যার কারণে ফরয গোসল করা অসম্ভব হলে…

জিজ্ঞাসা–৬৯৬: জনাব, সম্প্রতি আমার বিবাহ হয়। স্বাভাবিক নিয়মে আমি আমার স্ত্রী সাথে সহবাস করি। আমার ঠান্ডাজনিত সমস্যা আছে। তাই সহবাসের পরে ভোর রাতে গোসল করতে পারি না। কিন্তু ফজরের নামাজও আদায় করতে পারি না। আমি বিশ্বাস করি ইসলাম সবার জন্য ব্যবস্থা রেখেছে এই পরিস্থিতিতে আমার করণীয় কি?–সুলতান।

জবাব: মনে রাখতে হবে, গোসল ফরজ হওয়া সত্ত্বেও বিনা ওজরে অপবিত্র অবস্থায় এক ওয়াক্ত নামাজের সময় অতিবাহিত হয়ে যাওয়া মারাত্মক গোনাহ। (বাদায়ে ১/১৫১)

عَنْ نَوْفَلِ بْنِ مُعَاوِيَةَ، أَنَّ النَّبِيَّ قَالَ: مَنْ فَاتَتْهُ الصَّلَاةُ فَكَأَنَّمَا وُتِرَ أَهْلَهُ وَمَالَهُ

নওফেল বিন মুআবিয়া রাযি. থেকে বর্ণিত, রাসূল বলেছেন, যার নামায ফউত হয়ে গেল, যেন তার পরিবার ও সম্পদ সবই ধ্বংস হয়ে গেল। (মুসনাদে আহমাদ ২৩৬৪২)

সুতরাং আপনি যদি ঠাণ্ডাজনিত রোগের কারণে ঠাণ্ডা পানি ব্যবহারে অক্ষম হন তাহলে গরম পানি ব্যবহার করবেন। কেননা যে ব্যক্তির উপর গোসল ফরয হয় সে ব্যক্তি নামায পড়তে চাইলে তার উপর ফরয হচ্ছে– পানি দিয়ে গোসল করে নেয়া। আল্লাহ তাআলা বলেন,  وَإِنْ كُنْتُمْ جُنُبًا فَاطَّهَّرُوا আর তোমরা জুনুবী (অপবিত্র) হলে প্রকৃষ্টভাবে পবিত্রতা অর্জন করবে। (সূরা মায়েদা ৬)

আর যদি পানির ব্যবহারে; এমনকি তা গরম হলেও আপনার রোগের ক্ষতি হতে পারে তাহলে পানি দিয়ে গোসল করার পরিবর্তে মাটি দিয়ে তায়াম্মুম করতে পারেন। কেননা, আল্লাহ তাআলা বলেন,

وَإِن كُنتُم مَّرْضَى أَوْ عَلَى سَفَرٍ أَوْ جَاءَ أَحَدٌ مِّنكُم مِّنَ الْغَائِطِ أَوْ لَامَسْتُمُ النِّسَاءَ فَلَمْ تَجِدُوا مَاءً فَتَيَمَّمُوا صَعِيدًا طَيِّبًا

আর যদি তোমরা অসুস্থ হও বা সফরে থাক বা তোমাদের কেউ মলত্যাগ করে আসে বা তোমরা স্ত্রী সহবাস কর এবং পানি না পাও তবে পবিত্র মাটি দিয়ে তায়াম্মুম করবে। (সূরা মায়েদা ৬)

এ আয়াতে দলিল রয়েছে যে, অসুস্থ ব্যক্তি পানি ব্যবহার করার ফলে যদি তার মৃত্যু ঘটা, কিংবা রোগ বেড়ে যাওয়া কিংবা আরোগ্য লাভ বিলম্ব হওয়ার আশংকা থাকে সেক্ষেত্রে তিনি তায়াম্মুম করবেন।

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
মাওলানা উমায়ের কোব্বাদী নকশবন্দী
আরো পড়ুন–

The post ঠাণ্ডাজনিত সমস্যার কারণে ফরয গোসল করা অসম্ভব হলে… appeared first on কোরআনের জ্যোতি.

Updated: April 3, 2019 — 7:17 pm

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *